Space For Rent

Space For Rent
বুধবার, ০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
প্রচ্ছদ » জাতীয়
  দেখেছেন :   আপলোড তারিখ : 2014-09-03
নদী দখল ও দূষণকারীরা রাজাকার : নৌমন্ত্রী
বর্তমান প্রতিবেদক : দখল দূষণকারীদের এ যুগের রাজাকার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। বুধবার রাজধানীর বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন (বিএসসি) টাওয়ারে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন কার্যালয়ের উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, যারা নদী দখল ও দূষণ করছে, তারা এ যুগের রাজাকার।  

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় যারা প্রাণহানি ঘটিয়েছিল, তাদের আমরা রাজাকার বলি। নদীরও প্রাণ আছে। তাই নদীকে যারা দখল ও দূষণের মাধ্যমে ধ্বংস করছে, হত্যা করছে, তাদের এ যুগের রাজাকার আখ্যায়িত করাই সমীচীন।

জাতীয় নদীরক্ষা কমিশন অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে। নদীর দখল ও দূষণরোধে গত বছর জাতীয় নদীরক্ষা কমিশন আইন পাস হয়। এর পর থেকে কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে নদী দখলের চিত্র তুলে ধরে শাজাহান খান বলেন, নদী দখলমুক্ত করাই আমাদের চ্যালেঞ্জ। নদী দখলমুক্ত করার জন্য টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে টাস্কফোর্সের ২৬টি সভা হয়েছে। এই সভার সিদ্ধান্তের আলোকে ইতিমধ্যে প্রায় সাড়ে তিন হাজার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে।

নদীকে ‘মা’ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, নদীকে বাঁচালে মানুষ বাঁচবে, দেশ বাঁচবে। তাই স্লোগান হওয়া উচিত নদী বাঁচাও, দেশ বাঁচাও, মানুষ বাঁচাও।

অনুষ্ঠানে নৌপরিবহন সচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, বিবিধ কারণে নদীর অবস্থা আজ হুমকির সম্মুখীন। নদীকে মায়ের মতো আগলে না রেখে নদীকে নিয়ে হচ্ছে মহোত্সব।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জাতীয় নদী কমিশনের চেয়ারম্যান আতাহারুল ইসলাম।

(সেপ্টেম্বর ০৩, ২০১৪)