Space For Rent

Space For Rent
বৃহস্পতিবার, ০৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
প্রচ্ছদ » সম্পাদকীয়
  দেখেছেন :   আপলোড তারিখ : 2014-09-04
বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ
দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে চলা ভয়াবহ বন্যা এবং নদীভাঙনে লাখো লাখ মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করছে। বিশুদ্ধ পানির পাশাপাশি খাদ্য সঙ্কটেও পড়েছে অনেক দুর্গত এলাকার মানুষ। বিভিন্ন জেলার প্রায় ১০ লাখেরও বেশি হেক্টর জমির ফসল ডুবে যাওয়ায় প্রান্তিক কৃষকরা আছেন চরম বিপদে। পাশাপাশি বিভিন্ন স্থানে বন্যার কারণে স্কুল বন্ধ থাকায় শিক্ষা কার্যক্রমও ব্যাহত হচ্ছে। অবর্ণনীয় দুর্দশায় দিনযাপন করা এই মানুষগুলোর পাশে অন্যান্য বছরের মতো এবার তেমন কাউকে দাঁড়াতে দেখা যাচ্ছে না। মিডিয়ার বদৌলতে বন্যাদুর্গত মানুষের দুর্বিষহ জীবনের খণ্ড খণ্ড চিত্র প্রকাশ হলেও তাদের সহায়তার জন্য দেশের রাজনৈতিক দল, স্বেচ্ছাসেবী, সামাজিক-সাংস্কৃতিক এবং পেশাজীবী সংগঠনগুলোর কোনো তত্পরতা দেখা যাচ্ছে না। রাজনৈতিক দলগুলোর কেন্দ্রীয় নেতারা তাদের পাশে দাঁড়ানো তো দূরের কথা, বরং স্থানীয় নেতাদের অনেকেই বন্যাক্রান্ত এলাকা ছেড়ে শহরে চলে গেছেন বলে খবরে পাওয়া যাচ্ছে। সরকারি দলের দু-একজন মন্ত্রী-এমপিকে বন্যাকবলিত এলাকায় দেখা গেলেও বিএনপির তেমন কাউকেই দেখা যায়নি বলেও খবরে প্রকাশ। অতীতে যাদের ব্যক্তিগতভাবে বন্যাদুর্গতদের সহায়তা করতে দেখা গেছে, তাদেরও দেখা যাচ্ছে না এবার দুর্গতদের পাশে। এনজিওগুলোর তত্পরতাও খুব কম। গত কয়েক দিনে সরকারিভাবে যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে, তা চাহিদার তুলনায় কম। অনেক দুর্গম এলাকায় এ পর্যন্ত কোনো ত্রাণই পৌঁছায়নি। এমন চিত্র দেখা গেছে টেলিভিশনে। অনেক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান-মেম্বার ত্রাণ অপ্রতুল বলে জনরোষের ভয়ে বন্যাাক্রান্ত এলাকায় যাচ্ছেন না। জনগণের জন্য যাদের রাজনীতি, তারা কেন লাখ লাখ দুর্গত মানুষের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়াবেন না, এ এক বিস্ময় জাগানো বাস্তব প্রশ্ন। পানিবন্দি মানুষের অবর্ণনীয় কষ্ট দেখেও কেন নেয়া হচ্ছে না কোনো ত্বরিত পদক্ষেপ। কেন নেতারা ছুটে যাচ্ছেন না লাখ লাখ পানিবন্দি মানুষের পাশে? বড় দুটি রাজনৈতিক দলই দাবি করছে, স্থানীয় নেতাদের বন্যাাক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কিন্তু মাঠের চিত্র সে কথা বলে না। দুর্গত মানুষ একদিকে খাদ্য, পানযোগ্য পানি এবং বাসযোগ্য পরিবেশ পাচ্ছে না এখনও। তার ওপর বানভাসি মানুষ দূষিত পানি খেয়ে পেটের পীড়া, চর্মরোগসহ নানা সমস্যায় ভুগছে। অবিলম্বে সব রাজনৈতিক দল ও এনজিওগুলো বন্যার্ত মানুষকে বাঁচাতে ঝাঁপিয়ে পড়বেন— এটাই সবার প্রত্যশা।