Space For Rent

Space For Rent
সোমবার, ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
প্রচ্ছদ » জাতীয়
  দেখেছেন :   আপলোড তারিখ : 2014-09-08
আগামী ২ মাস ক্ষুদ্রঋণের কিস্তি নেয়া যাবে না
বর্তমান প্রতিবেদক : গত দুই মাসের বন্যায় বাংলাদেশের ১ লাখ ৭০ হাজার হেক্টর ফসলি জমি প্লাবিত হওয়ার প্রেক্ষাপটে ক্ষতিগ্রস্তদের কাছ থেকে দুই মাস ক্ষুদ্রঋণের কিস্তি আদায় না করতে বলেছে এনজিও নিয়ন্ত্রক সংস্থা— মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথোরিটি (এমআরএ)। সোমবার দেশে কার্যরত সব এনজিও প্রধানকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনার কথা বলা হয়।
এমআরএ বলে, বন্যার প্রকোপ, ক্ষতির পরিমাণ, গ্রাহকদের আর্থিক অবস্থা এবং ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা বিবেচনায় ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের কাছ থেকে বন্যাকালীন ও বন্যাপরবর্তী ন্যূনতম দুই মাস বিদ্যমান ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধ রাখতে পরামর্শ দেয়া হলো। অন্তর্বর্তী বা দুর্যোগকালীন সময়ে নতুন ঋণ দেয়ার পাশাপাশি চলমান ঋণ পুনঃতফসিল করার ব্যবস্থা নিতেও পরামর্শ দিয়েছে এমআরএ। এর আগে কেন্দ্রীয় ব্যাংকও বন্যাদুর্গত এলাকায় সহায়তার জন্য ব্যংকগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে একটি সার্কুলার দিয়েছিল।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রাথমিক হিসাবে গত প্রায় দুই মাস ধরে চলা বন্যায় ১ লাখ ৭০ হাজার হেক্টর ফসলি জমি প্লাবিত হয়েছে। এসব জমিতে রোপা আমন, বোনা আমন ও আউশ ধান এবং শাক-সবজি ও মসলা জাতীয় ফসল ছিল। এসব ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
(সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৪)