Space For Rent

Space For Rent
মঙ্গলবার, ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
প্রচ্ছদ » শেষ পাতা
  দেখেছেন :   আপলোড তারিখ : 2014-09-09
অনুমতি ছাড়া ডিএনএ পরীক্ষা করলে শাস্তি
সংসদ প্রতিবেদক
সরকারের অনুমোদন ছাড়া কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান ডিএনএ পরীক্ষা বা সংরক্ষণ করলে পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল এবং ৩ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে ‘ডিঅক্সিরাইবো নিউক্লিক অ্যাসিড (ডিএনএ) বিল-২০১৪’-এর রিপোর্ট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেছে সংসদীয় কমিটি। গতকাল সোমবার মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি রেবেকা মমিন রিপোর্টটি উপস্থাপন করেন।
গত ২৪ আগস্ট বিলটির রিপোর্ট চূড়ান্ত করেছিল কমিটি। এর আগে অপরাধী চিহ্নিত, পিতৃত্ব-মাতৃত্ব নিরূপণ কিংবা মৃতদেহ শনাক্ত করার মতো কাজে ডিএনএ পরীক্ষা ও সংরক্ষণে আইন প্রণয়ণে গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর বিলটি মন্ত্রিসভার অনুমোদন পায়। 
বিলে ফরেনসিক ডিএনএ ল্যাবরেটরি স্থাপন ও জাতীয় ডাটাবেজ প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীকে চেয়ারম্যান করে ১৮ সদস্যের একটি ফরেনসিক ডিএনএ ল্যাবরেটরি উপদেষ্টা পরিষদ গঠনের প্রস্তাব রাখা হয়েছে। উপদেষ্টা পরিষেদে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, পুলিশ, বিশেষজ্ঞসহ বিশিষ্ট নাগরিকদের রাখার কথা বলা হয়েছে।
বিলে বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তি বা সংস্থা সরকারের অনুমোদন ছাড়া ডিএনএ পরীক্ষা বা সংরক্ষণ করতে পারবে না। এ আইন ভাঙলে পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল এবং তিন লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। ডিএনএ নমুনা ধ্বংস, পরিবর্তন, দূষিত বা জাল করা হলে; কারো দায়িত্বে অবহেলার কারণে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা না গেলে বা নমুনা নষ্ট হলেও বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে প্রস্তাবিত আইনে। এতে বলা হয়েছে, তদন্তের প্রয়োজনে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে কেউ অসম্মতি জানালে পুলিশ আদালতে যেতে পারবে। তবে কমপক্ষে দুজন সাক্ষীর উপস্থিতি এবং বিধি দ্বারা নির্ধারিত পদ্ধতি ছাড়া কোনো ব্যক্তির ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা যাবে না।
কোনো ব্যক্তির ডিএনএর রাসায়নিক বিশেষণ করলে প্রতিটি নির্দেশকের বিপরীতে দুটি করে পৃথক সংখ্যা পাওয়া যায়; যার প্রতিটি ওই ব্যক্তির একেকটি বৈশিষ্ট্যের পরিচয় বহন করে। একজনের ডিএনএ পরীক্ষায় পাওয়া ৩২টি সংখ্যার সঙ্গে অন্যজনের সংখ্যা মিলিয়ে দেখলেই বাবা-মা বা আত্মীয়তার সম্পর্ক বলে দেয়া যায়।