Space For Rent

Space For Rent
মঙ্গলবার, ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
প্রচ্ছদ » অন্যদেশ
  দেখেছেন :   আপলোড তারিখ : 2014-09-09
ভারত-পাকিস্তানে বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৫০
বর্তমান ডেস্ক : ভারত ও পাকিস্তানের ভয়াবহ বন্যায় গত কয়েক দিনে প্রায় ৪৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে। পাকিস্তানের পাঞ্জাব ও আজাদ কাশ্মীরে প্রায় ২৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
মঙ্গলবার ভারতের হিন্দি দৈনিক জাগরণ ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইন সংস্ককরণের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ৬০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যায় জম্মু-কাশ্মীরে ২১৪ জনের প্রাণহানি হয়েছে। প্রলয়ঙ্করী বন্যায় ভেঙে পড়েছে টেলি যোগাযোগ ব্যবস্থা।  ভেসে গেছে শতাধিক গ্রাম। এ পর্যন্ত পানিবন্দি ২৩ হাজার মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও বন্যায় আটকে আছেন লক্ষাধিক মানুষ। ভারতের নৌ, বিমান ও সেনা বাহিনী যৌথভাবে উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছে।
কাশ্মীরের ঝিলাম নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্লাবিত হয়েছে রাজধানী শ্রীনগরেরও বহু বাড়ি, সেনা চৌকি এমনকি হাসপাতালও। বাদামি বাগ ক্যানটনমেন্ট থেকে কয়েকশ সেনা ও তাদের পরিবারের লোকজনকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উদ্ধার কাজের সঙ্গে চলছে ত্রাণ বিতরণও। বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অন্যদিকে পাকিস্তানের পাঞ্জাব ও আজাদ কাশ্মীরে বন্যায় প্রায় ২৫০ জনের প্রাণহানি হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও দুশরও বেশি মানুষ। পানিতে ডুবে ও বাড়ির ছাদ ও দেয়াল ধসে এসব হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে পাকিস্তানি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
মঙ্গলবার পাকিস্তানের ইংরেজি পত্রিকা ডনের অনলাইন সংস্করণের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাঞ্জাব ও আজাদ কাশ্মীরে গত সপ্তাহে শুরু হওয়া বন্যায় পাঞ্জাবে ১৫০, কাশ্মীরে ৬৪ ও উত্তরাঞ্চলে ১০ জন মারা গেছেন। বন্যায় ফসলি জমির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কাশ্মীরে বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন করে সবধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন  দেশটির প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। এদিকে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে বন্যা দুর্গত এলাকায় সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু এ প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছে পাকিস্তান।
(এইচআর/সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৪)