Space For Rent

Space For Rent
মঙ্গলবার, ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৪
প্রচ্ছদ » অন্যদেশ
  দেখেছেন :   আপলোড তারিখ : 2014-09-09
চলতি মাসেই যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন মোদি
বর্তমান ডেস্ক : কয়েক বছরের মার্কিন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে চলতি মাসের শেষে দুই দিনের সরকারি সফরে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন ভারতের নতুন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সফরে হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হবেন তিনি। ২৯-৩০ সেপ্টেম্বরের এ সফরে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের মধ্যকার কৌশলগত অংশীদারিত্বের সম্পর্ক কীভাবে আরও জোরাল ও দৃঢ় করা যায় সে বিষয়ে ওবামার সঙ্গে আলোচনা করবেন মোদি। খবর: বিবিসি, জি নিউজ ও রয়টার্সের।
পারস্পরিক সহযোগিতার মধ্যদিয়ে অর্থনৈতিক উন্নতি, নিরাপত্তা বৃদ্ধির পাশাপাশি দুদেশের জন্য দীর্ঘ মেয়াদি উন্নয়নের বিষয়েও বৈঠকে আলোচনা হবে। হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের কৌশলগত অংশীদারিত্ব আরও নিবিড় ও বিস্তৃত করতে দুই নেতা পারস্পরিক বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করবেন। অসামরিক পরমাণু চুক্তি কার্যকর করার বিষয়টিও আলোচনায় গুরুত্ব পাবে। ভারতকে পরমাণু চুল্লি বিক্রির শর্ত হিসেবে পরমাণু দায়বদ্ধতা আইন লঘু করার দাবি জানাচ্ছে মার্কিন সংস্থাগুলো। নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকেই বিষয়টি তোলার জন্য ওবামার ওপর চাপ রয়েছে তাদের। এছাড়া আফগানিস্তান, সিরিয়া ও ইরাক ইস্যুতে আলোচনা করবেন বলে বিবৃতিতে বলা হয়।
প্রসঙ্গত, ২০০২ সালে গুজরাটের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাকে কেন্দ্র করে ২০০৫ সালে মোদিকে ভিসা দিতে অস্বীকৃতি জানায় যুক্তরাষ্ট্র। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, হিন্দু-মুসলমান সামপ্রদায়িক দাঙ্গায় তিনি উসকানি দিয়েছিলেন। যদিও মোদি বরাবর অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছেন। ভারতের কোনো আদালতও তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগের প্রমাণ পায়নি। এর পরও গত নভেম্বরে মার্কিন কংগ্রেসে আনা এক প্রস্তাবে মোদিকে ভিসা না দিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয়; কিন্তু সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ভারতের পার্লামেন্ট নির্বাচনের আগে বদলে যায় প্রেক্ষাপট। মোদি ভারতের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন— এমনটা বুঝতে পেরেই মার্কিন প্রশাসন ইঙ্গিত দেয়, মোদির যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার পথে কোনো বাধা নেই।
(এইচআর/সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৪)