ঢাকা বিভাগে ২০ দলীয় জোটের সম্ভাব্য প্রার্থী যারা
Published : Wednesday, 19 July, 2017 at 7:21 PM, Count : 9234
ঢাকা বিভাগে ২০ দলীয় জোটের সম্ভাব্য প্রার্থী যারাএম. উমর ফারুক : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিনক্ষণ এখনও ঠিক হয়নি। নির্বাচনী মাঠ গোছানোর জন্য কাজ শুরু করেছেন আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও সংশ্লিষ্ট জোটভুক্ত শীর্ষ নেতারা।
বিএনপির নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, বিএনপি ও ২০ দলীয় জোট নেতাদের কাজের ওপর মূল্যায়ন করে প্রার্থী চূড়ান্ত মনোনয়ন দেবে দলটির হাইকমান্ড। বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে ঢাকা বিভাগের যারা কাজ করছেন তারা হলেন- ঢাকা-১ (দোহার ও নবাবগঞ্জ) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান ও নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার আবু আশরাফ। ঢাকা-২ (কেরানীগঞ্জ-কামরাঙ্গীরচর) : চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান ও কামরাঙ্গীরচর থানা বিএনপির সভাপতি মনির হোসেন। ঢাকা-৩ (কেরানীগঞ্জ) : স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও তার মেয়ে বিএনপির প্রান্তিক জনশক্তি উন্নয়নবিষয়ক সহ-সম্পাদক অপর্ণা রায়। ঢাকা-৪ (শ্যামপুর) : নবম সংসদ নির্বাচনে (২০০৮) এ আসন থেকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন জাসাস ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি জাহাঙ্গীর শিকদার। ঢাকা-৫ (ডেমরা-যাত্রাবাড়ী): সাবেক এমপি সালাউদ্দিন আহমেদ, ঢাকা মহানগর বিএনপি নেতা নবিউল্লাহ নবী, গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, বিজেপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মতিন সাউদ ও জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) খালেকুজ্জামান চৌধুরী।
ঢাকা-৬ (সূত্রাপুর-কোতোয়ালি) : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা, তার ছেলে ইশরাক হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার ও যুবদল দক্ষিণের সাবেক সভাপতি হামিদুর রহমান হামিদ।
ঢাকা-৭ (লালবাগ-চকবাজার): বিএনপির প্রয়াত সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টুর স্ত্রী ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি নাসিমা আক্তার কল্পনা, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি মোশারফ হোসেন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রাসেল, যুবদল নেতা মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ ও ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকার। ঢাকা-৮ (রমনা) : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক আলী ফালু ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল।
ঢাকা-৯ (মুগদা-সবুজবাগ): স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সিনিয়র সহ-সভাপতি শামসুল হুদা ও মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রশিদ হাবিব। ঢাকা-১০ (ধানমন্ডি-হাজারীবাগ) : বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পাদক ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন শেখ রবিউল আলম (রবি) অসীম।
ঢাকা-১১ (বাড্ডা-ভাটারা) : ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সভাপতি এম এ কাইয়ূম ও তার স্ত্রী শামীম আরা বেগম। ঢাকা-১২ (তেজাগাঁও): মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি সাহাব উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার ও যুবদল সভাপতি সাইফুল আলম নিরব। ঢাকা-১৩ (মোহম্মদপুর-আদাবর) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, বিএনপি চেয়াপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি আতিকুল ইসলাম মতিন ও এনপিপির মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা।
ঢাকা-১৪ (মিরপুর-শাহআলী): সাবেক এমপি ও বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য এস এ খালেক, তার ছেলে এসএ সিদ্দিক সাজু, নগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি মুন্সী বজলুল বাসিত আনজু ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সাবেক কমিশনার শামীম পারভেজ।
ঢাকা-১৫ (কাফরুল-মিরপুর) : যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা মামুন হাসান। ঢাকা-১৬ (পল্লবী) : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া ও বিএনপির ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক ও জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল হক।
ঢাকা-১৭ (গুলশান-ক্যান্টনমেন্ট) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী ও মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি আবদুল আলীম নকী। ঢাকা-১৮ (উত্তরা) : ঢাকা মহানগর উত্তর যুবদলের সভাপতি এস এম জাহাঙ্গীর ও মেজর কামরুল ইসলাম (অব.)।
ঢাকা-১৯ (সাভার) : জেলা বিএনপির সভাপতি দেওয়ান সালাউদ্দিন ও বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মেজর (অব.) মিজানুর রহমান। ঢাকা-২০ (ধামরাই) : চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান খান, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ ও ধামরাই উপজেলা চেয়ারম্যান তমিজউদ্দিন।
গাজীপুর-১ (কালিয়াকৈর) : জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী মো. সাইয়েদুল আলম বাবুল, বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য মো. মুজিবুর রহমান ও শ্রমবিষয়ক সহ-সম্পাদক হুমায়ুন কবির খান।
গাজীপুর-২ (সিটি ও ক্যান্টনমেন্ট) : কেন্দ্রীয় নেতা মো. হাসান উদ্দিন সরকার ও শ্রমিক দলের কার্যকরী সভাপতি মো. সালাহ উদ্দিন সরকার। গাজীপুর-৩ (শ্রীপুর-সদর) : জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো. সাখাওয়াত হোসেন সবুজ, শ্রীপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. শাহজাহান ফকির, ওলামা দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পীরজাদা এস এম রুহুল আমিন ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু। গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) : বিএনপির প্রয়াত নেতা আ স ম হান্নান শাহর ছেলে মো. রিয়াজুল হান্নান ও কাপাসিয়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. জামাল উদ্দিন। গাজীপুর-৫ (কালীগঞ্জ) : বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম ফজলুল হক মিলন।
নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ): জেলা বিএনপির সভাপতি কাজি মনিরুজ্জামান, বিএনপির চেয়ারপারসন উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার ও কেন্দ্রীয় নেতা মোস্তাফিজুর রহমান দিপু ভূঁইয়া।
নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) : বিএনপির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক বদিউজ্জামান খসরু, বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ ও কল্যাণ পার্টির নেতা প্রফেসর ড. ইকবাল হাসান।
নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁও) : মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রেজাউল করিম, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, সোনারগাঁ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম মান্নান ও জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) শফিউদ্দিন ভূঁইয়া।
নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) : সাবেক এমপি মো. গিয়াস উদ্দিন, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. শাহ আলম, ফতুল্লা থানা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মনিরুল আলম সেন্টু, জেলা বিএনপি সদস্য ব্যারিস্টার পারভেজ ও বাংলাদেশ ন্যাপের মো. কামাল ভূঁইয়া। নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর ও বন্দর) : সাবেক এমপি ও মহানগর বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম ও মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান।
নরসিংদী-১ (সদর) : বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনজুর এলাহী। নরসিংদী-২ (পলাশ) : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মইন খান ও অ্যাডভোকেট আবদুল বাছেদ ভূঁইয়া।
নরসিংদী-৩ (শিবপুর) : জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ও বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া। নরসিংদী-৪ (বেলাব-মনোহরদী) : সাবেক এমপি সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল, লে. কর্নেল (অব.) মো. জয়নাল আবেদীন ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল। নরসিংদী-৫ (রায়পুরা) : সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল আলী মৃধা, বিএনপি নেতা জামাল উদ্দিন, অ্যাডভোকেট একে নেছার উদ্দিন এবং ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ উদ্দিন বকুল।
মানিকগঞ্জ-১ (দৌলতপুর-ঘিওর-শিবালয়) : জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এসএ জিন্নাহ কবীর, বিএনপির প্রয়াত মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের বড় ছেলে ও জেলা বিএনপির কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ড. খন্দকার আকবর হোসাইন বাবলু ও ছোট ছেলে ছেলে জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য খন্দকার আবদুল হামিদ ডাবলু, মানিকগঞ্জ-২ (সিঙ্গাইর-হরিরামপুর) : জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মঈনুল ইসলাম খান শান্ত। মানিকগঞ্জ-৩ (সদর-সাটুরিয়া) : জেলা বিএনপির সভাপতি আফরোজা খান রিতা ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা।
মুন্সীগঞ্জ-১ (শ্রীনগর-সিরাজদিখান) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সাবেক সহ-প্রচার সম্পাদক মহিউদ্দিন খান মোহন, শ্রীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মমিন আলী ও সিরাজদিখান উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।
মুন্সীগঞ্জ-২ (লৌহজং-টঙ্গিবাড়ী) : বিএনপির কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান সিনহা ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ। মুন্সীগঞ্জ-৩ (মুন্সীগঞ্জ সদর-গজারিয়া) : জেলা বিএনপি সভাপতি আবদুল হাই, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামসুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম।
টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ী) : নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফকির মাহবুব আনাম স্বপন, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সুপ্রিমকোর্ট শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলী, কানাডা প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মাহবুব ভূঁইয়া (লতিফ), ধনবাড়ী উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক রেজাউল হক, মধুপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র শহিদুল ইসলাম সরকার (সরকার শহীদ)। টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) : যুবদল সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ শামসুল আলম তোফা, ভূঞাপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক মেয়র অ্যাডভোকেট আবদুল খালেক মণ্ডল।
টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) : চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা লুত্ফর রহমান খান আজাদ, জেলা বিএনপির কোষাধ্যক্ষ শিল্পপতি মাইনুল ইসলাম ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি খলিলুর রহমান। টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) : জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও কালিহাতী উপজেলা বিএনপির সভাপতি শিল্পপতি লুত্ফর রহমান মতিন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (ময়মনসিংহ) ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি এসএমএ খালিদ, কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা দলের যুগ্ম সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আ. হালিম, এলেঙ্গা পৌরসভার মেয়র ও জেলা বিএনপি নেতা মো. শাফী খান, মালয়েশিয়া বিএনপির নেতা ইঞ্জিনিয়ার বাদলুর রহমান খান ও বিএনপি নেতা বেনজীর আহমেদ টিটু।
টাঙ্গাইল-৫ (সদর) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) মাহমুদুল হাসান, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ছাইদুল হক ছাদু ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ শামসুল আলম তোফা। টাঙ্গাইল-৬ (নাগরপুর-দেলদুয়ার) : সাবেক প্রতিমন্ত্রী বিএনপির কেন্দ্রীয় পল্লী উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট গৌতম চক্রবর্তী, সাবেক মন্ত্রী নুর মোহাম্মদ খান, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি রবিউল আওয়াল লাভলু, টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) : মির্জাপুর উপজেলা বিএনপি সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, উপজেলা বিএনপি নেতা শিল্পপতি একেএম আজাদ স্বাধীন, কেন্দ্রীয় নেতা সাইদুর রহমান সাঈদ সোহরাব ও জেলা বিএনপির সদস্য ফিরোজ হায়দার খান। টাঙ্গাইল-৮ (সখীপুর-বাসাইল) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমেদ আযম খান, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (ময়মনসিংহ) ছাত্রদলের সভাপতি মো. ইয়ার মাহমুদ, ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসির ও সখীপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান সাজু।
কিশোরগঞ্জ-১ (সদর-হোসেনপুর) : জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি রেজাউল করিম খান চুন্ন, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক খালেদ সাইফুল্লাহ সোহেল, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মাসুদ হিলালি, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হাজি ইসরাইল মিয়া ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ওয়ালিউল্লাাহ রাব্বানী। কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদি-পাকুন্দিয়া) : জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আসফাক আহমেদ জোন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি রুহুল আমিন আকিল, জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ইদ্রিস আলী ভূঁইয়া, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক শহীদুজ্জামান কাকন, কটিয়াদীর সাবেক পৌর মেয়র তোফাজ্জল হোসেন খান দিলীপ ও পাকুন্দিয়ার সাবেক পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট জালাল উদ্দিন।
কিশোরগঞ্জ-৩ (তাড়াইল-করিমগঞ্জ) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ড. ওসমান ফারুক, জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মোল্লা ও করিমগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাবেক ভিপি সাইফুল ইসলাম সুমন। কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) : চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, প্রিন্সিপাল হাবিবুল ইসলাম ভূঁইয়া, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মো. আমীরুজ্জামান ও সাবেক এমপি ফরহাদ আহমদ কাঞ্চনের ছেলে বর্তমানে ড্যাবের নেতা ডা. ফেরদৌস আহমদ চৌধুরী।
কিশোরগঞ্জ-৫ (নিকলী-বাজিতপুর) : বাংলাদেশ মুসলিম লীগের সভাপতি এএইচএম কামরুজ্জামান খান, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শেখ মুজিবুর রহমান ইকবাল, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ নাসির, বাজিতপুর পৌর বিএনপির সভাপতি এহসান কুফিয়া, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সালেহুজ্জামান খান রুনু এবং সাবেক এমপি মজিবুর রহমান মঞ্জুর ছেলে মাহমুদুর রহমান উজ্জ্বল। কিশোরগঞ্জ-৬ (কুলিয়ারচর-ভৈরব) : জেলা বিএনপির সভাপতি শরিফুল আলম ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. গিয়াস উদ্দিন।
ফরিদপুর-১ (বোয়ালমারী-মধুখালী-আলফাডাঙ্গা) : বীর মুক্তিযোদ্ধা, শ্রমিক নেতা ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক এমপি শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর, সাবেক এমপি জিয়া পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব খন্দকার নাছিরুল ইসলাম ও মধুখালী পৌর বিএনপির সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দীন আহম্মেদ সতেজ। ফরিদপুর-২ (সালথা-নগরকান্দা) : বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (ফরিদপুর-বিভাগ) শামা ওবায়েদ, নগরকান্দা বিএনপির সাবেক সভাপতি কেএম জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) সহিদুল ইসলাম বাবুল। ফরিদপুর-৩ (সদর) : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, ফরিদপুর জেলা বিএনপির সভাপতি জহুরুল হক শাহজাদা মিয়া ও যুবদলের কেন্দ্রীয় সহ-গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হাসান পিংকু। ফরিদপুর-৪ (ভাঙ্গা-সদরপুর-চরভদ্রাসন) : বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক এমপি ইয়াসমিন আরা হক ও চরভদ্রাসন উপজেলা চেয়ারম্যান বাদল আমীন।
রাজবাড়ী-১ (সদর ও গোয়ালন্দ) : সাবেক এমপি ও জেলা বিএনপির সভাপতি আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়াম ও উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এমএ খালেক। রাজবাড়ী-২ (পাংশা-কালুখালী-বালিয়াকান্দি) : সাবেক এমপি নাছিরুল হক সাবু ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুন আর রশিদ।
গোপালগঞ্জ-১ (মুকসুদপুর ও কাশিয়ানী একাংশ) : বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সেলিমুজ্জামান ও গোপালগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এফই শরফুজ্জামান জাহাঙ্গীর। গোপালগঞ্জ-২ (গোপালগঞ্জ সদর ও কাশিয়ানী একাংশ) : গোপালগঞ্জ জেলা বিএনপি নেতা এমএইচ খান মঞ্জু, এম মসুনসুর আলী ও মো. সিরাজুল ইসলাম সিরাজ। গোপালগঞ্জ-৩ (টুঙ্গিপাড়া ও কোটালীপাড়া) : বিএনপি কেন্দ্রীয় নেতা এস এম জিলানী, মো. আসাদুজ্জামান ও উপজেলা বিএনপি নেতা আফজাল হোসেন।
শরীয়তপুর-১ (সদর-জাজিরা) : জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন কালু ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলতাফ শিকদার। শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) : সাবেক মন্ত্রী টি এম গিয়াস উদ্দিন, কেন্দ্রীয় নেতা জামাল শরিফ হিরু ও জেলা সভাপতি শফিকুর রহমান কিরন। শরীয়তপুর-৩ (ডামুড্যা-গোসারহাট-ভেদরগঞ্জ) : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পিএস মিয়া নুর উদ্দিন অপু, বিএনপির প্রয়াত নেতা হেমায়েত উল্লাহ আওরঙ্গের স্ত্রী তাহমিনা আওরঙ্গ, জেলা সহ-সভাপতি ডা. এসএম কামাল উদ্দিন ও জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদ আহমেদ আসলাম।
মাদারীপুর-১ (শিবচর) : জেলা বিএনপির সদস্য খলিলুর রহমান ঠাণ্ডু চৌধুরী, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইয়াজ্জেম হোসেন রোমান, সহ-সভাপতি আবু জাফর চৌধুরী ও জেলা সদস্য নুরুদ্দিন মোল্লা। মাদারীপুর-২ (সদর ও রাজৈর) : মহিলা দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি হেলেন জেরিন খান, জেলা বিএনপির সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক আবু মুন্সি ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহান্দার আলী জাহান। মাদারীপুর-৩ (কালকিনি ও সদর একাংশ) : সাবেক ছাত্রনেতা আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, বিএনপির ফরিদপুর বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার মাশুকুর রহমান ও কালকিনি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান আজাদ।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক: আলহাজ্ব মিজানুর রহমান, উপদেষ্টা সম্পাদক: স্বপন কুমার সাহা।
সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : মুন গ্রুপ, লেভেল-১৭, সানমুন স্টার টাওয়ার ৩৭ দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।, ফোন: ০২-৯৫৮৪১২৪-৫, ফ্যাক্স: ৯৫৮৪১২৩
ওয়েবসাইট : www.dailybartoman.com ই-মেইল : news.bartoman@gmail.com, bartamandhaka@gmail.com
Developed & Maintainance by i2soft