প্রধানমন্ত্রিত্বের লড়াইয়ে শাহবাজ শরিফের আপত্তি
Published : Wednesday, 2 August, 2017 at 8:42 PM, Count : 254
প্রধানমন্ত্রিত্বের লড়াইয়ে শাহবাজ শরিফের আপত্তিবর্তমান ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী হওয়ার লড়াইয়ে নামতে চাইছেন না শাহবাজ শরিফ। নওয়াজ শরিফের শূন্য আসনটিতে প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতাকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ মনে করছেন তিনি। সে কারণে তাকে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী করার সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনার জন্য নওয়াজ শরিফকে বলার কথা ভাবছেন শাহবাজ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাত দিয়ে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম একপ্রেস ট্রিবিউন এ খবর জানিয়েছে। পদত্যাগের পর দলীয় এক বৈঠকে শাহবাজকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত করেন অযোগ্য ঘোষিত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। তবে প্রধানমন্ত্রী হতে হলে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজকে প্রথমে নওয়াজের শূন্য আসনে প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতা করতে হবে। এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের শূন্য আসনটিতে প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতা করতে চাইছেন না ছোট ভাই শাহবাজ শরিফ। দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের বিবেচনাকে আমলে নিয়ে তিনি ওই আসনের প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতাকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ সিদ্ধান্ত’ বলে মনে করছেন। পিএমএল-এন এর সূত্রকে উদ্ধৃত করে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানায়, জাতীয় পরিষদের-১২০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্ব্বিতাকে ঝুঁকিপূর্ণ উল্লেখ করে পাঞ্জাবের জ্যেষ্ঠ নেতারা শাহবাজকে এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার পরামর্শ দিয়েছেন। পাঞ্জাবের নেতারা মনে করছেন এ আসনে শাহবাজকে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের প্রার্থীর সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করতে হবে। এ নির্বাচনে যদি নেতিবাচক ফলাফল আসে তবে তা দলের অবস্থানকে দুর্বল করবে।
নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে এক পিএমএল-এন নেতা এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীকে (শাহবাজ) পাঞ্জাবের ক্ষমতা ধরে রাখার পরামর্শ দেয়া হয়েছে, তিনি প্রধানমন্ত্রী হলে পাঞ্জাবের অবস্থা খারাপ হতে পারে। প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক দায়িত্ব শাহবাজ ভালোভাবে সামলাচ্ছেন। পাঞ্জাবে তার জায়গায় অন্য কেউ আসলে শাহবাজের সহায়তা নিয়ে ওই ব্যক্তি প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করতে পারলেও নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি রাজনৈতিক গতিবিদ্যাকে সামলাতে পারবেন না।’ আরেক নেতা বলেছেন, ‘নওয়াজ শরিফ ডি-ফ্যাক্টো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে কাজ চালিয়ে যেতে পারবেন। এখন শুধু একজন ডামি প্রধানমন্ত্রী দরকার। আর এক্ষেত্রে শাহিদ খাকান আব্বাসিই ঠিক আছেন।’ ওই নেতা জানান, শুধু নওয়াজের ইশারায় কাজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী হয়ে তিনি অযথা নিজের ক্ষতি না করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে শাহবাজকে।’
ওই নেতা আরও বলেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী চলতে থাকলে শাহবাজকেও ইসলামাবাদ থেকে পাঞ্জাবকে পরোক্ষে সামলাতে সেখানকার জন্য ডামি মুখ্যমন্ত্রী বেছে নিতে হবে। তবে এতে তেমন একটা লাভ দেখছেন না ওই নেতা। এর চেয়ে শাহবাজের লাহোরে থেকে পাঞ্জাব সামলানোকেই শ্রেয়তর মনে করছেন তিনি। বেনামি সূত্রকে উদ্ধৃত করে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানায়, পাঞ্জাবের নেতাদের দেয়া পরামর্শের সঙ্গে সহমত জানিয়েছেন শাহবাজ। তবে নিজে নিজেই তিনি সেই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না। আর এর জন্য সামনের দিনগুলোতে নওয়াজের সঙ্গে এ নিয়ে আলাপ করার কথা ভাবছেন তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত সবকিছু নির্ভর করছে নওয়াজের ওপরই। পাকিস্তানের সুপ্রিমকোর্ট শুক্রবার এক আদেশে বলেছে, পাকিস্তানের সংবিধান অনুযায়ী সত্ থাকার শর্ত ক্ষুণ্ন করায় রাষ্ট্রের প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব পালনের ‘যোগ্য’ নন তিনি। সুপ্রিমকোর্টের আদেশের কিছুক্ষণ পরেই পদত্যাগের ঘোষণা দেন নওয়াজ। এজন্যই শাহবাজকে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী করার কথা ভাবছে নওয়াজের মুসলিম লিগ।



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক: আলহাজ্ব মিজানুর রহমান, উপদেষ্টা সম্পাদক: স্বপন কুমার সাহা।
সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : মুন গ্রুপ, লেভেল-১৭, সানমুন স্টার টাওয়ার ৩৭ দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।, ফোন: ০২-৯৫৮৪১২৪-৫, ফ্যাক্স: ৯৫৮৪১২৩
ওয়েবসাইট : www.dailybartoman.com ই-মেইল : news.bartoman@gmail.com, bartamandhaka@gmail.com
Developed & Maintainance by i2soft