রাজশাহীর জয়, ড্র করলো ঢাকা-বরিশাল
এনামুলের ডাবল সেঞ্চুরি
Published : Monday, 18 September, 2017 at 9:13 PM, Count : 172
রাজশাহীর জয়, ড্র করলো ঢাকা-বরিশালক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রথম ইনিংসে ৭৯ রানে গুঁড়িয়ে যাওয়া রাজশাহীই শেষ হাসি হাসলো। ফরহাদ হোসেনের ব্যাটে সিলেটের বিপক্ষে ৬ উইকেটের দারুণ জয় তুলে নিয়েছে দলটি।
জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে সোমবার ২ উইকেটে ৮৬ রান নিয়ে চতুর্থ ও শেষ দিন শুরু করে স্বাগতিকরা। জয়ের জন্য তখনও দরকার ১২৬ রান।  
জুনায়েদ সিদ্দিকের সঙ্গে ৭২ আর মাইশুকুর রহমানের সঙ্গে ৬৭ রানের জুটিতে দলকে জয়ের কাছে নিয়ে যান ফরহাদ হোসেন। ৯৯ বলে ১১টি চার আর একটি ছক্কায় ফিরেন ৭০ রান করে। বাকিটা ফরহাদ রেজাকে নিয়ে সহজেই সেরেছেন ৩৭ রানে অপরাজিত থাকা মাইশুকুর। রাজশাহী এক সেশনেই পৌঁছে লক্ষ্যে। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেয়া সায়েম আলম এবার উইকেটশূন্য। ক্যারিয়ার সেরা সেই বোলিংয়ের জন্য তিনিই জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।
দুই উইকেট হারিয়ে ৩০৯ রান। লঙ্গার ভার্সন ক্রিকেটে এটা বেশ শক্ত অবস্থানই বলা যায়। এমন শক্ত অবস্থানে থেকেও শেষ পর্যন্ত জাতীয় ক্রিকেট লিগে বরিশালের সঙ্গে ড্র করেছে ঢাকা বিভাগ। ১৯তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম রাউন্ডের প্রথম স্তরের ম্যাচে কক্সবাজারে মুখোমুখি হয় ঢাকা বিভাগ ও বরিশাল বিভাগ। বৃষ্টির বাগড়ায় ম্যাচের তিনদিনই খেলা হতে পারেনি। ফলে নিষ্প্রাণ ড্র মেনে নিতে হয়েছে দুই দলকেই। শুক্রবার ভেজা আউটফিল্ডের কারণে প্রথম দিনের খেলা হয়নি। পরদিন ব্যাট-বলের লড়াইয়ে জমে ওঠে ম্যাচ। শেষ দু’দিন আবারও বৃষ্টি। রোববার বৃষ্টির কারণে দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। গতকাল সোমবার একই কারণে একটি বলও মাঠে গড়াতে পারেনি। ফলে দুপুরে ম্যাচ ড্র ঘোষণা করেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা। দুই দলকে ২ পয়েন্ট করে দেয়া হয়েছে।
ম্যাচের দ্বিতীয় দিন পুরো ৯০ ওভার খেলা হয়। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ২ উইকেটে ৩০৯ রান সংগ্রহ করে ঢাকা বিভাগ। সেঞ্চুরির স্বাদ পান রনি তালুকদার ও সাইফ হাসান। রনি ১২০ ও সাইফ ১০৬ রান করেন। সাইফ ১০৬ রানে অপরাজিত ছিলেন। ২০১২ সালে ফতুল্লায় ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে ১৯৩ রানের ইনিংস খেলে ৭ রানের আক্ষেপ নিয়ে ফিরেছিলেন সাজঘরে। তবে এবার আর তিক্ত স্বাদ পেলেন না। নতুন ঘরোয়া মৌসুমের প্রথম ম্যাচেই নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি তুলে নিলেন বিজয়। ১৭২ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করে আউট হন ২১৬ রানে। আগের দিনের ১৭২ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করেন বিজয়। ৩৩০ বলে ১৭ চার আর দুই ছক্কায় ডাবল সেঞ্চুরির ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছান বিজয়। ডাবল সেঞ্চুরি করে অবশ্য বেশিক্ষণ এই তারকা। ৩৫৬ বলে ২১৬ রান করে আউট হয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, এর আগে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১২টি সেঞ্চুরি ছিল বাংলাদেশ দলের হয়ে চারটি টেস্ট খেলা বিজয়ের।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক: আলহাজ্ব মিজানুর রহমান, উপদেষ্টা সম্পাদক: স্বপন কুমার সাহা।
সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : মুন গ্রুপ, লেভেল-১৭, সানমুন স্টার টাওয়ার ৩৭ দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত।, ফোন: ০২-৯৫৮৪১২৪-৫, ফ্যাক্স: ৯৫৮৪১২৩
ওয়েবসাইট : www.dailybartoman.com ই-মেইল : news.bartoman@gmail.com, bartamandhaka@gmail.com
Developed & Maintainance by i2soft